সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীর দেশে সপ্তাহে কর্মদিবস ৪ দিন ঘোষণা - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Sunday, 5 January 2020

সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীর দেশে সপ্তাহে কর্মদিবস ৪ দিন ঘোষণা


একুশে মিডিয়া, আন্তর্জতিক রিপোর্ট:>>>
ফিনল্যান্ডের চাকরিজীবীদেরকে নতুন বছরে সুখবর দিলেন দেশটির নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন।<:একুশে মিডিয়া:>
এখন থেকে সরকারি ও বেসরকারি কর্মজীবীরা সপ্তাহে ৪ দিন কর্মদিবস ঘোষণা করেছেন তিনি। এই চারদিন দিনে মাত্র ৬ ঘণ্টা করে কাজ করলেই হবে।<:একুশে মিডিয়া:>
এর আগে দেশটিতে সপ্তাহে ৫ দিন কর্মদিবস ছিল। ওই ৫ দিন ৮ ঘণ্টা কাজ করার নিয়ম ছিল।<:একুশে মিডিয়া:>
কর্মক্ষেত্রে কম সময় দিয়ে জনগণ যেন পরিবারকে বেশি সময় দিতে পারে সেজন্য এ পদক্ষেপ নিয়েছে প্রধানমন্ত্রী সানা ম্যারিনের সরকার।<:একুশে মিডিয়া:>
৩৪ বছর বয়সী বিশ্বের বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী সানা বলেন, আমি মনে করি, এ দেশের জনগণ তাদের প্রিয়জন ও পরিবারকে আরও বেশি সময় দেয়া উচিত। জীবনকে শুধুই অফিসে সীমাবদ্ধ না রেখে একে পরিবার নিয়ে উপভোগ করার অধিকার রয়েছে দেশের প্রতিটি মানুষের। তাদের সেই অধিকার যেন তারা ভোগ করতে পারেন সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত।<:একুশে মিডিয়া:>
এমন সিদ্ধান্ত দেশের উন্নয়নে বাধাগ্রস্ত করবে কিনা এমন প্রশ্নে সানা বলেন, আমার কাছে তেমনটি মনে হয় না। নতুন সিদ্ধান্তের ফলে যে মানসিক প্রশান্তি আসবে তা আমাদের কাজের গতি আরও বাড়িয়ে দেবে।<:একুশে মিডিয়া:>
সানার এমন বক্তব্যের পেছনে উদাহরণও রয়েছে। প্রতিবেশি দেশ সুইডেনে ২০১৫ সাল থেকে দিনে ৬ ঘণ্টা করে কাজ করার নিয়ম চালু রয়েছে। এতে দেখা গেছে সেখানকার কর্মীরা খুবই খুশি মনে কাজ করে যাচ্ছেন। এতে দেশ পিছিয়ে যাচ্ছে না বরং উৎপাদন আগের চেয়ে ভালো।<:একুশে মিডিয়া:>
এদিকে প্রধানমন্ত্রী সানার এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ফিনল্যান্ডবাসী। সানার দায়িত্ব নেয়ার পর দেশবাসীর জন্য এটি তার বড় উপহার হিসেবে দেখছেন জনগণ।<:একুশে মিডিয়া:>
প্রধানমন্ত্রী সানার এই প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশটির বাম জোটের নেতা শিক্ষামন্ত্রী এন্ডারসন।<:একুশে মিডিয়া:>
তিনি বলেন, ফিনল্যান্ডবাসীর জন্য খুবই সুখের খবর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। নারীর মন নরম বলে তিনি এমন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন এমনটি ভাবার অবকাশ নেই। আমরা মনে করি, বিষয়টি তার ভোটারদের প্রতি দায়বদ্ধতার অংশ।<:একুশে মিডিয়া:>
প্রসঙ্গত গত বছরের ডিসেম্বরে বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন ফিনল্যান্ডের সানা মেরিন। একই মাসে আস্থাভোটে হেরে অ্যান্তি রিন প্রধানমন্ত্রিত্ব পদ থেকে পদত্যাগ করলে তার স্থলাভিষিক্ত হন সানা।<:একুশে মিডিয়া:>
এর আগে সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট দলের এ নেত্রী পরিবহনমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।<:একুশে মিডিয়া:>





একুশে মিডিয়া/এমএসএ<:একুশে মিডিয়া:>

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages