বাঁশখালীতে ঋষিকুম্ভ ও কুম্ভমেলা প্রাঙ্গণে যেকোন মুহুর্তে গ্যাস বিস্ফোরণ হতে পারে! - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Thursday, 6 February 2020

বাঁশখালীতে ঋষিকুম্ভ ও কুম্ভমেলা প্রাঙ্গণে যেকোন মুহুর্তে গ্যাস বিস্ফোরণ হতে পারে!

বাঁশখালীতে ‘আন্তর্জাতিক ঋষিকুম্ভ ও কুম্ভমেলা’ প্রাঙ্গণে নিজেদের তৈরিকৃত হাইড্রোজেন গ্যাস বেলুন ফোলানো ও মেলা প্রধান গেইটে বিক্রির দৃশ্য

প্রতিবেদক-মোহাম্মদ ছৈয়দুল আলম:>>>
বাংলাদেশে এক মাত্র অনুষ্ঠিত ‘আন্তর্জতিক ঋষিকুম্ভ ও কুম্ভমেলা’ চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে অনুষ্টিত হয়। এই কুম্ভমেলায় শুধু বাংলাদেশের মানুষ নয় ভারত, নেপাল সহ বিভিন্ন দেশে আগত লাখ লাক ভক্তবৃন্দ ছুড়ে আসে এই মেলা। এতে শুধু সনাতন ধর্মের মানুষ নয় সকল ধর্মের মানুষগুলোর সমাআগম হয়। প্রতিদিন হাজার হাজার নারী-পুরুষের সমাআগম হচ্ছে।
বাংলাদেশের একমাত্র কুম্ভমেলা বিশেষ নিরাপত্তার জন্য রয়েছে প্রায় ৪শতাধিক প্রশাসন এবং মেলা পরিচালানা সহ রয়েছে বিভিন্ন বিষয়ে আলাদা আলাদা কমিটির।
এই মেলা সকলের চোখে ফাঁকি দিয়ে অর্থ রুপে চালিয়া যাচ্ছেন মৃত্যু মুখি গ্যাস বেলুনের ব্যবসা!
হিলিয়াম গ্যাস দিয়ে গ্যাস বেলুন ফোলানোর কথা থাকলেও ব্যবহার করা হচ্ছে হাইড্রোজেন গ্যাস। হিলিয়াম গ্যাসের আমদানি মূল্য বেশি বলে কম মূল্যে বেলুন বিক্রির জন্য বিক্রেতারা নিজেরাই এই হাইড্রোজেন গ্যাস তৈরি করছে!
ফলে এসব বেলুন ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার পাশাপাশি বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটছে। অনুসন্ধানে বাঁশখালীর কোকদন্ডী ঋষিধামে আন্তর্জাতিক ঋষিকুম্ভ ও কুম্ভমেলা প্রাঙ্গনে কোনও রকম নিরাপত্তা ও নির্দেশনা ছাড়াই নিজেদের তৈরি এই গ্যাস ব্যবহার করা হচ্ছে বেলুনে। এইসব গ্যাসে দেশে বিভিন্ন স্থানে ঘটছে বহু দুর্ঘটনা ঘটে।
গ্যাসে হঠাৎ করে বেলুনগুলো বিস্ফোরিত হয়ে অগ্নিকাণ্ডের সৃষ্টি হয়। এইসব বেলুনগুলো বিক্রি হচ্ছে এই হাইড্রোজেন গ্যাস বেলুন। বিভিন্ন কার্টুনের অবয়বে বানানো প্লাস্টিকের বেলুনেও ব্যবহৃত হচ্ছে হাইড্রোজেন গ্যাস। এই গ্যাস তৈরিতে ব্যবহৃত হচ্ছে সালফিউরিক অথবা হাইড্রোক্লোরিক এসিড। অ্যাসিডের সঙ্গে মেশানো হচ্ছে জিংক।
রাসায়নিক বিক্রিয়া শেষে উপজাত হিসেবে তৈরি হচ্ছে হাইড্রোজেন গ্যাস। তলানি হিসেবে জমছে জিংক সালফেট অথবা জিংক ক্লোরাইড লবণ। বিক্রেতারা সাধারণত গাড়ির ব্যাটারি থেকে এসব এসিড সংগ্রহ করে ব্যবসায়ীরা বাঁশখালীতে কুম্ভমেলার দক্ষিণ পার্শ্বে (শহিনের বাড়ীতে) ভাড়া বাসায়, মেলা উত্তর পার্শ্বে কাঁচা বাজার সংলগ্ন পূর্ব পার্শ্বে ভাসমান স্থান দখল করে ও মেলার পশ্চিম পার্শ্বে জন বসতির মাঝেই যেকোন মুহুর্তেই বিস্ফোরণে ঝুঁকিপূর্ণ  গ্যাস তৈরী হচ্ছে। এসব গ্যাস ব্যবহারের ফলে যেকোন মুহুর্তে গড়তে পারে বড় ধরণের দুর্ঘটনা।

সম্প্রতিক দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘর্টে যাওয়া সংক্ষিত সংগ্রহীত সংবাদ দেখুন।
প্রথমআলোতে প্রকাশিত সংবাদ
ভিডিও: রূপনগরে বেলুনের গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৫ শিশু নিহত

মিরপুরে স্কুলে গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, নিহত ১
দৈনিক জনকন্ঠতে প্রকাশিত সংবাদ:গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ

আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ: বকখালিতে গ্যাস বেলুনের সিলিন্ডার ফেটে জখম ৩
অর্থসূচক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ: বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ: আরও ২ শিশুর মৃত্যু
বাংলা ট্রিবিউন এ  প্রকাশিত সংবাদ: বেলুন বিক্রেতারাই তৈরি করছে হাইড্রোজেন গ্যাস!
বিবিসিতে  প্রকাশিত সংবাদ: বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ হয় কেন?


ভিডিও দেখুন 




একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages