কুমিল্লার বুড়িচংয়ে বস্তাবন্দি গলাকাটা অজ্ঞাত কিশোর এর লাশ উদ্ধার! - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Monday, 16 March 2020

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে বস্তাবন্দি গলাকাটা অজ্ঞাত কিশোর এর লাশ উদ্ধার!



এম এ হাসান, কুমিল্লা:
কুমিল্লায় গলাকাটা অজ্ঞাত এক কিশোরের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে স্থানীয় পুলিশ।
স্থানীয় বুড়িচং থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায় যে( ১৫ মার্চ)  রোববার বিকেলে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুরে গোমতি নদীর প্রতিরক্ষা বাধের নিচে বস্তাবন্দি অজ্ঞাত এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করে বুড়িচং থানা পুলিশ।
গত দুদিন পূর্বে দূর্বৃত্তরা অন্যত্র হত্যা করে বস্তাবন্দি করে প্রতিরক্ষা বাধের নিচে পাতা দিয়ে ঢেকে ফেলে চলে যায়। রোববার দুপুরে স্থানীয় লোকজন উদ্ভট দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে বস্তার কাছে গিয়ে দেখতে পান বস্তার মধ্যে মৃত লাশ। স্থানীয়রা বুড়িচং থানা পুলিশকে খবর দিলে বিকেলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার  করে। এই বিষয়ে আলাপকালে 
স্থানীয় সূত্র জানায় পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের আওয়ামীলীগ নেতা এম.এ. আজাদ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য হাফিজ উদ্দিন মেম্বারের বাড়ীর পশ্চিম পার্শ্বে গোমতি নদীর প্রতিরক্ষা বাধের নিচে একটি বস্তা গত দুদিন ধরে পাতা দিয়ে ডাকা।
রোববার দুপুর থেকে ওই বস্তাটি ডাকা অবস্থায় দুর্গন্ধে পুরো এলাকার লোকজন অতিষ্ট হয়ে পড়ে। স্থানীয় উৎসুক লোকজন কাছে গিয়ে দেখতে পায় বস্তায় বাধা অবস্থায় একটি লাশ তা থেকে পচা দুর্গন্ধ বের হচ্ছে।
তখন স্থানীয় লোকজন বুড়িচং থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ বিকেলে এসে লাশ উদ্ধার করে। এদিকে বুড়িচং থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাসুদ খান বলেন গত দুএকদিন পূর্বে দূর্বৃত্তরা ওই ব্যক্তিকে কোথাও গলা কেটে হত্যা করে এখানে এনে ফেলে দিয়ে চলে যায়। উদ্ধার করা লাশটির বয়স আনুমানিক ১৪-১৫ বৎসর বয়স হবে। 
তিনি আরো জানান লাশটির উদ্ধারের খবর পেয়ে একই উপজেলার ভারেল্লা উত্তর ইউনিয়নের পশ্চিমসিংহ গ্রামের জহিরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি ভাগ্নে পরিচয়ে লাশটি দেখেন এবং বলেন ওই লাশটির জামা কাপড় ও চেহারার সাথে তার ভাগিনার কোন মিল নেই।
তার বাগিনা হলো একই গ্রামের মনিরুল ইসলাম ছেলে নাজমুল (১৬) অটোরিক্সা চালক গত ২দিন পূর্বে সেও নিখোঁজ হন।
এ ব্যাপারে বুড়িচং থানার ওসি মোঃমোজাম্মেল হক পিপিএম বলেন লাশের এখনো পরিচয় পাওয়া যায় নি।
ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরনের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে যেই জড়িত থাকুক না কেন তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে। পুলিশি কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।





একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages