কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে কাশিনগরে ফটোসেশন বিহীন শতাধিক পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Wednesday, 1 April 2020

কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে কাশিনগরে ফটোসেশন বিহীন শতাধিক পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ



এম এ হাসান, কুমিল্লা:
কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের খেটে-খাওয়া দিনমজুর শ্রমিক সহ নিম্নআয়ের অসহায় ১শত পরিবারের পাশে এসে দাঁড়ালেন মের্সাস ঈশা এন্টারপ্রাইজ এর পরিচালক হাজী ইলিয়াস হাজারী।
এবং প্রতিটি পরিবারের মাঝে ১ সপ্তাহের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সবচেয়ে অবাক করার বিষয় টি হলো কোন প্রকার ফটোসেশন ছাড়াই এই ব্যতিক্রমী অনুদান সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
এবং বিতরণ কালে হাজী ইলিয়াছ হাজারী উপস্থিত উৎসুক জনতার সামনে হাত জোড় করে অনুরোধ করেন, কেউ যাতে অতি উৎসাহী হয়ে ফটো না তুলেন।চলমান প্রেক্ষাপটে সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম এই বিতরণ টি ইউনিয়ন জুড়ে প্রশংসার জড় তুলেছে।
জানা যায় উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের জুগির কান্দি গ্রামের সম্ভান্ত্র হাজারী পরিবারের কৃতি সন্তান সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মরহুম নুরুল ইসলাম হাজারী ভাতিজা হাজী ইলিয়াস হাজারী চলমান করোনা মহামারিতে লকডাউনে থাকা কাশিনগর ইউনিয়নের জুগিরকান্দি, খুন্তা, জুগীপাড়া, মজলিশপুর, অশ্বদিয়া,শাহপুর,সহ আশেপাশের বিভিন্ন গ্রামের খেটে-খাওয়া রিক্সা চালক, অটো চালক, দিনমজুর ১শত পরিবারের মাঝে ব্যক্তিগত অর্থায়নে  এক সপ্তাহের খাদ্য ও নিত্যপ্রয়জনীয় সামগ্রী বিতরণ করেন।খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ১০ কেজি চাউল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি মশারীর ডাল, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ লিটার তৈল, ও নগদ ৫০০ টাকা।
ইউনিয়নের দরবেশ মার্কেটে (৩১শে মার্চ) মঙ্গলবার হাজী ইলিয়াস হাজারীর মের্সাস ঈশা এন্টারপ্রাইজ এর সামনে বিতরণ কালে উৎসুক জনতার ভিড় জমে,একসময় তিনি সকলের নিকট হাত জোড় করে অনুরোধ করেন কেউ যেন অতি উৎসাহী হয়ে মোবাইলে ফটো না তুলেন।
স্থানীয় দরবেশ মার্কেটের ব্যবসায়ীর সূত্রে সংবাদ পেয়ে আমাদের প্রতিনিধি মুঠোফোনে কথা বলেন হাজী ইলিয়াস হাজারীর সাথে, এসময় তিনি বলেন হা আমি আমার সাধ্য পরিমাণ চেষ্টায় চলমান পরিস্থিতি তে যারা দিনমজুর তাদের লকডাউনে খাবার জোগাড় করা কষ্টকর তাই আমি গত ২/৩ দিন থেকে খুব সুদক্ষ কৌশলে সঠিক ভুক্তভুগী দের তালিকা করে তাদের পরিবারের মাজে এই সামগ্রী বিতরণ করি।ফটো তুলতে নিষেধাজ্ঞা প্রদান এর বিষয় টি জানতে চাইলে তিনি জানান আসলে দান করা মূলত আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষে,এতে ডাকঢোল পিটিয়ে লোক দেখানোর কিছু নেই, তাছাড়া যাদের কে আমরা এসকল সামগ্রী বিতরণ করছি তারা সবাই আমাদের ই সমাজের খেটে-খাওয়া মানুষ, এসময় সকলে ই পরিস্থিতির স্বীকার তাই তাদের ফটো আফলোড করাটা আমার দৃষ্টি তে ভালো দেখায়না।
জানা যায় জুগিরকান্দি গ্রামের এই হাজারী পরিবার দেশের বিভিন্ন দূর্যোগ মূহুর্তে এলাকার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের প্রতি সহযোগিতা করে থাকেন।
ধারাবাহিক ভাবে চলমান ভয়াবহ করোনা মহামারী তে ও জনসাধারনের  পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন উক্ত পরিবারের কৃতি সন্তান হাজী ইলিয়াছ হাজারী।
খাদ্যসামগ্রী পাওয়া স্থানীয় ২/৩ জন রিক্সা চালক বলেন, এই ইলিয়াস হাজারী সাব শুধু এখন না তিনি বহু আগ থেকে আমাদের পাশে বিভিন্ন সহযোগিতা করেন,ঈদের সময়,শীতকালে বিভিন্ন রকমের সহযোগিতা তিনি করেন,আল্লাহ পাক উনাকে নেক হায়াত দান করুক।হাঁ আমাদের ও একটি চাওয়া ফটোশেসন বিহীন এই হাজী ইলিয়াছ হাজারীর বিতরণ এর বিষয় টি সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের নজড়ে পড়ুক,এতে শ্রমজীবী অসহায় মানুষের সর্বোপরি মঙ্গল হবে।



একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages