ওরা বুঝবে কেন, ওদের কি দোষ!! - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Sunday, 26 April 2020

ওরা বুঝবে কেন, ওদের কি দোষ!!


রেখা মনি, রংপুর:
আমার বাসার প্রতিদিনের এমন চিত্র হলেও
আজকের চিত্রটি আগামী কালের
মানে প্রথম রোজার দিন।।
ভেবেছিলাম একটু দেরীতে ঘুম থেকে উঠব।

"""""বিধি বাম"""'
ওদের চিৎকারে একটু বিরক্তও হয়েছিলাম।
কিন্তু এই অসহায় মানুষগুলির কি দোষ?
ওরা  জানে,
আমি, দাতা সাবেক ছাত্রনেতা, জেলা আওয়ামীলীগের
যুগ্ন সাধারন সম্পাদক 
শাহিনুর রহমানের সোহেলের  সহধর্মীনী।
সারাজীবন পরিবারের,বোন ভাই, বউ, 
সবার কাছে থকে নিয়ে মানুষকে খুশি করে গেছেন
রাউফুন বসুবীয়া বড় ভাই,ছোট ভাই সোহেল।
দুই ভাই রাজনীতি থেকে কিছুই পায়নি।
রাজনীতিতে তাদের ত্যাগ ইতিহাস বলবে
যাই হোক আবার আমি
নারী নেত্রী 
আমি রংপুর জেলা পরিষদের সদস্য।।???
জেলা পরিষদ আমাকে বা আমাদের কি দিয়েছে
কতটুকু দিয়েছে এটা ওদের জানার কথা নয়।
সারা বাংলাদেশের  জেলা পরিষদ যা করেছে
আমরা রংপুর ৪০% নয়।
আজ অবদি একটা জরুরী মিটিং হয়নি।
এলাকা ভিত্তিক মানুষগুলির কি অবস্থা 
চেয়ারম্যান মহোদয় জানতে চায়নি 
কোন সদস্যদের কাছে। 
একাই কিছু মাক্স কিনেছিল চেয়ারম্যান মহোদয়,
স্বাস্থ সম্মত নয়।
খাবারের প্যাকেটে হিসাবের তুলনায় মাপ কম।।
কত টাকা বাজেট সব অন্ধকারে।
যদিও মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর  নির্দেশ আছে
জনগনের পাশে থাকবার।
একটি সার্কুলার ও পাঠিয়েছে
মন্ত্রনালয় থেকে।
সদস্য এলাকায় ১ লক্ষ করে খরচ করার।
অথচ কাগজ কলমে দেখেছি,জেনেছি
বাংলাদেশে রংপুর জেলা পরিষদ 
সম্পদের দিক থেকে দ্বীতীয়।
সবি রহস্য বৈকি।
টাকা নাকি বিভিন্ন প্রাইভেট ব্যাংকে।
সঠিক হিসাব কোন সদস্য জানিনা।
অন্যদিকে
বাসায় জনগনের চাপ।
মনকে শান্তনা দিলাম।। 
শেরপুরের ভিক্ষুক  নাজিম চাচার 
সারা জীবনের ভিক্ষার সঞ্চয় ত্রান তহবিলে
দেয়ার ইতিহাস আমাকে শানিত করল।
ভাল মানুষ হতে টাকা লাগে না।
ইতিবাচক মানুষীকতা লাগে।
নিজের আর আমার আত্মীয় স্বজন
আর আমার প্রিয় মানুষগুলির সহযোগিতায়
 একটু মানুষের পাশে থাকার চেষ্টাটুকুন অব্যাহত রাখলাম মাত্র
আসুন সবাই মিলে এই অসহায় মানুষগুলির পাশে থাকি।
নেতা হবার জন্য নয়।
সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে।
কারন একজন ভিক্ষুকের ভ্যাট টাক্সের টাকাও
আপনার সফলতার জীবনে সরকার খরচ করেছেন।আপনি সমাজের কাছে দায়বদ্ধ।



একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages