ভোলার রাজাপুরে চোর আটক করে চোরাই ছাগল খেয়ে ফেললেন ইউপি মেম্বার - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Sunday, 3 May 2020

ভোলার রাজাপুরে চোর আটক করে চোরাই ছাগল খেয়ে ফেললেন ইউপি মেম্বার

মোঃ ইব্রাহীম সোহেল, ভোলা:

ভোলায় এক ইউপি সদস্যয়ের বিরুদ্ধে চোরাই ছাগল খেয়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার ভুক্তভোগী ছাগল মালিক সাদ্দাম হোসেন সাংবাদিকদের কাছে এই অভিযোগ দেন।

ছাগল মালিক ভুক্তভোগী সাদ্দাম হোসেন জানান, শুক্রবার রাতে একদল চোর তার বসতি বাড়ি থেকে ছাগল চুরি করে নেওয়ার পথে মধ্যরাতে ছাগলসহ চোরদেরকে আটক করেন রাজাপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হেলালসহ স্থানীয়রা।
আটকের পর চোরদেরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। সে সাথে চোরদলের বহন করা একটি অটোরিকশা ও একটি ছাগল উদ্ধার করে। অটোরিকশা ড্রাইভারকে রিক্সা দিলেও ছাগল নিয়ে মেম্বার অনেক তাল বাহানার পর ছাগলটি পিরিয়ে না দিয়ে খেয়ে ফেলন।
ছাগলের মালিক সাদ্দাম হোসেন আরো জানান, রাতে ঘটনা ঘটার পর সকালে আমরা মেম্বারের কাছে আসি। মেম্বার আমাদেরকে ছাগল আছে বলে আশ্বাস করে ফাঁড়িতে গিয়ে চোরকে দেখে মিলন মেম্বারের ভাইকে নিয়ে এসে ছাগল নিতে বলে।আমরা চোর দেখে মিলন মেম্বারের ভাইকে নিয়ে এসে সারাদিন অপেক্ষা করার পরে রাত্রে হেলাল মেম্বার বলেন ছাগল খেয়ে ফেলেছি। ছাগল না পাওয়ায় আমরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি
এব্যাপারে হেলাল নাম্বারের সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, আমি চোর অটোরিকশা ও ছাগল উদ্ধার করি। চোরকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছি। ফাঁড়ির ইনচার্জ কে জানিয়ে রিক্সার মালিককে রিক্সা দিয়েছি। ছাগলের মালিক আসতে দেরি করায় ছাগলটি খেয়ে ফেলেছি।
ফাঁড়ির ইনচার্জ রতন কুমার শীল এর সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, মেম্বার আমাকে চোর ও অটোরিকশার বিষয়ে জানিয়েছেন। ছাগলের বিষয়ে কিছুই জানাননি। তাই আমি ছাগলের বিষয়ে কিছুই জানি না।



একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a Comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages