সাংবাদিককে চোখ তুলে নেব, ইয়াবা দিয়ে চালান করে দিব! লোহাগাড়া থানার দুই পুলিশ - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Wednesday, 24 June 2020

সাংবাদিককে চোখ তুলে নেব, ইয়াবা দিয়ে চালান করে দিব! লোহাগাড়া থানার দুই পুলিশ

একুশে মিডিয়া, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলায় ২২ জুন বিকালে লোহাগাড়ার চুনতি পুলিশ ফাঁড়িতে পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য তথ্য সংগ্ৰহ করতে যান বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল জয়যাত্রা টেলিভিশনের চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি সেলিম উদ্দিন। কিন্তু তথ্য না দিয়ে উল্টো এএসআই সিদ্দিক চড়াও হয় সাংবাদিক সেলিম উদ্দিনের উপর, তিনি রাগান্বিত কণ্ঠে বলেন কি আর হবে আমার বেশি হলে চট্টগ্রামে বদলি করে দিবে এ কথা বলতে বলতে গায়ে হাত দিয়ে বের করে দিচ্ছিল আর বলছিল, অবশ্যই বের করে দিব, ইয়াবা দিয়ে চালান করে দিব এই বেডা তুই কোন ধরনের সাংবাদিক এই শালা কইজ্জা খাইফালামু শালা, এই বেডা ইয়াবা দিয়ে চালান দিব শালা মাদারচুদ।
এ সময় অপর দিক দিয়ে এসআই রিদুয়ান বলছেন আপনি বেয়াদবি কাজ করেছেন তো, আমি পরে শুনেছি,এই শালা বের হ এখন এই একটা থাপ্পড় মারব এই কথা বন্ধ কর চোখ তুলে ফেলাব শালা এ আমি কিন্তু অন্য মাল খুব সাবধান এক কানে থাপ্পড় মারব শালা। এই কথোপকথন গুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে চট্টগ্রামের সাংবাদিক মহলে বেশ চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়েছে।
এর প্রতিবাদে মানববন্ধনসহ একাধিক কর্মসূচি করবে সাংবাদিকমহল বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে সাংবাদিক সেলিম উদ্দিন সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান মোল্ল্যাকে জানালে তিনি বলেন, আপনি পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ দিন, আমাকে দায়িত্ব দিলে এ বিষয়ে তদন্ত করব। সাংবাদিক সেলিম আরো জানান, আমি আগামীকাল এসপি ও ডিআইজি বরাবরে অভিযোগ দায়ের করবো।
এ বিষয়ে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি ও সেক্রেটারি আবদুল হাকিম রানা ও কায়সার ইকবাল চৌধুরী বলেন, ঘটনার সুস্থ তদন্ত করে দুই পুলিশের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ হোক।
বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সেক্রেটারি শহীদুল ইসলাম পাইট ও আহমেদ আবু জাফর বলেন,একজন সংবাদকর্মীকে পুলিশ এভাবে খারাপ আচরণ করতে পারেনা।
আইনের পোশাক পরে আমি কিন্তু অন্য মাল, ইয়াবা দিয়ে চালান করে দিমু এরকম ঘৃণ্য আচরণ কখনো মেনে নেওয়া যায়না। এ বিষয়ে উর্ধতন কর্মকর্তাকে দৃষ্টি আকর্ষণ করছি দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।






একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages