যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিতে বিজয় দিবস উদযাপন - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Monday, 16 December 2019

যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিতে বিজয় দিবস উদযাপন


একুশে মিডিয়া, রাবি প্রতিনিধি:>>>
দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) উদযাপিত হয়েছে মহান বিজয় দিবস। দিবসটি উপলক্ষে সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনসহ বিভিন্ন পেশাজীবী ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন নিজ নিজ কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি উদযাপন করেছে।

দিবসটির শুরুতে শনিবার সকাল ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্যদ্বয় অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও চৌধুরী মো. জাকারিয়া, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারী, ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু, প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকারসহ ঊর্ধতন কর্মকর্তাগণ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ও শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।
এরপর সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে উপাচার্য, উপ-উপাচার্যদ্বয়, কোষাধ্যক্ষ ও রেজিস্টারসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্যরা বিশ্ববিদ্যালয় গণকবর স্মৃতিস্তম্ভে (বদ্ধভূমি) পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শহীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন। সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হয় বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের খেলাধুলা। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ও পুরস্কার প্রদান করেন উপাচার্য আব্দুস সোবহান। সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে শেখ রাসেল মডেল স্কুল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় আনন্দ মেলা। এই আনন্দ মেলায় ছিল স্কুলের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাঙ্গন প্রতিযোগিতা, খেলাধুলাসহ নানা আয়োজন। উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া এ অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ করেন। সেখানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মো. আবুল হাসান চৌধুরীসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।
সকাল ১০টায় ‘সাবাস বাংলাদেশ’ চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় বিএনসিসি, রোভার স্কাউট ও রেঞ্জার ইউনিটের কুচকাওয়াজ। এতে প্যারেড পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন উপাচার্য। এরপর সকাল ১০টা ৪৫মিনিটে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবন চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এম আব্দুস সোবহান।
বেলা ১১টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেডিয়ামে প্রীতি ক্রিকেট, ফুটবল ও হ্যান্ডবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। বাদ জোহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কোরআনখানি ও বিশেষ মোনাজাত এবং সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় মন্দিরে প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ৬টা ৩০মিনিটে মিনিটে কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়েছে।
দিবসের কর্মসূচিতে বিভিন্ন পেশাজীবী ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের আয়োজনে সকাল ৭টা ৩০মিনিটে রাবি শিক্ষক সমিতি, বিভিন্ন হল প্রশাসন, রাবি রিপোর্টার্স ইউনিটি ও অন্যান্য সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রভাতফেরি শেষে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। সকাল ১০টা ৩০মিনিটে কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়া চত্বরে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, রাবি ইউনিট কমান্ডের ও কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনের পশ্চিম চত্বরে রাবি অফিসার সমিতি এবং নিজ নিজ কার্যালয় প্রাঙ্গণে রাবি সহায়ক কর্মচারী সমিতি, পরিবহন কর্মচারী সমিতি ও সাধারণ কর্মচারী ইউনিয়ন আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 
এদিন রাবি শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ও বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য খোলা থাকবে।




একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages