পলাশবাড়ীতে প্রকল্পের সভাপতির কথা না শোনায় প্রকল্পের সর্দ্দারের উপর হামলা! - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Sunday, 26 January 2020

পলাশবাড়ীতে প্রকল্পের সভাপতির কথা না শোনায় প্রকল্পের সর্দ্দারের উপর হামলা!


একুশে মিডিয়া, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি:>>>
গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার  ৯ নং হরিনাথপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড এর হতদরিদ্রের জন্য ৪০ দিনের কর্মসূজন প্রকল্পের সভাপতি হাসিনা বেগমের দাবীকৃত অর্থ শ্রমিকদের নিকট হতে উত্তোলন না করে দেওয়ায় প্রকল্পের সভাপতির লোকজনের হামলায় প্রকল্পের সর্দ্দার লতা রানীকে মারপিট ও  হামলা চালিয়ে  লতা রানী রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ৪ দিনপর এঘটনায় পলাশবাড়ী থানায় ৬ জনের নামে অভিযোগ দায়ের করেছেন  লতা রানী ।
অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,লতা রানী ১২ বছর যাবৎ প্রকল্পের সর্দ্দার হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। বর্তমান সময়ে প্রকল্পের সভাপতি ইউপি সদস্য হাসিনা বেগমের অন্যায় দাবীকৃত অর্থ শ্রমিকদের নিকট হতে উত্তোলন করে না দেওয়ায় ৪০ দিনের কর্মসূচি  প্রকল্প থেকে  লতা রানীকে বাদ দেওয়ার পায়তারা করে উক্ত ইউপি সদস্য । এছাড়াও প্রকল্পের সভাপতির মনোনীত ব্যক্তিরা কাজে না আসলে দৈনিক হাজিরা খাতায় অনুপস্থিত দেখানোয় হাসিনা বেগমের লোকজন লতারানীকে গত ১৫ জানুয়ারী সকাল ১০ টার সময় টাকিয়ার বাজারে সুকমল এর চায়ের দোকানের সামনে পৌছামাত্র অভিযুক্তরা দেশীয় অস্ত্র লাঠি সোডা লোহার রড দিয়ে লতা রানীকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে।  পরে স্থানীয়রা আহত লতা রানীকে উদ্ধার করে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসা গ্রহন শেষে গত ১৮ জানুয়ারী পলাশবাড়ী থানায় ইউপি সদস্য হাসিনা বেগমসহ ৬ জনের নামে অভিযোগ দায়ের করেন লতা রানী।
এদিকে পলাশবাড়ী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা যায়, চলমান প্রকল্পে লতা রানী একজন বৈধ শ্রমিক, সে প্রকল্পে দীর্ঘ সময় ধরে কর্মরত রয়েছে।
এ ঘটনায় ভুক্তভোগী প্রকল্পের সর্দ্দার আহত লতা রানী জানান , এ ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করেছি  । হরিনাবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রের  পুলিশ সরেজমিনে তদন্ত করেছে। এ ঘটনায় 
তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের  জোর দাবী জানায় সচেতন এলাকাবাসী।





একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages