শার্শায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন "ভোরের পাখি" - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Tuesday, 14 April 2020

শার্শায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন "ভোরের পাখি"


জাহিরুল মিলন, শার্শা প্রতিনিধি:
করোনায় বিশ্ব বিপর্যয়ের অংশ এখন বাংলাদেশও। নোভেল করোনা ভাইরাসের কারণে আতঙ্ক যেমন বাড়ছে তেমনি সচেতনতা বাড়াতে ও প্রয়োজনীয় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণে স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করছে বিভিন্ন সংগঠন। দেশের এই ক্রান্তিকালে মানবিকতায় এগিয়ে এসেছে শার্শা উপজেলার "ভোরের পাখি" নামক এক সামাজিক সংগঠন।
ইতিমধ্যে দেশের বিভিন্ন ক্রান্তিকালে এই সংগঠনটি কাজ করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) সকালে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দরা সকলে উপস্থিত থেকে উপজেলার দফাদার পাড়া ও ঘাটকান্দা এলাকার সুবিধাবঞ্চিত ৭৬টি পরিবারের প্রত্যেকের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী বিতরন করেন।
তথ্যসূত্রে জানা যায়, শার্শা উপজেলার দফাদার পাড়া ও ঘাটকান্দা এলাকায় যারা এখনো কোন ত্রাণ সামগ্রী পায়নি এমন অভিযোগ শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল বরাবর জানালে তিনি "ভোরের পাখি" সংগঠনের সন্মানিত সভাপতি উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মেহেদি হাসানকে বিষয়টি অবহিত করেন। তারপর সভাপতি মেহেদি হাসান "ভোরের পাখি"র সকল সদস্যদের সাথে নিয়ে উক্ত এলাকার ৭৬টি পরিবারের মাঝে এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরন করেন।
খাদ্যসামগ্রী বিতরনের সময় "ভোরের পাখি" সংগঠনের সুযোগ্য সভাপতি উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মেহেদি হাসান বলেন, “আমরা খাদ্যসঙ্কটে থাকা মানুষগুলোকে খাদ্যসামগ্রী দিয়ে তাদের এই দূর্দিনে পাশে দাড়াতে চাই, চাই দেশের ক্রান্তিকালে ভূমিকা রাখতে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূলক কুমার মন্ডলের ডাকে সাড়া দিয়ে "ভোরের পাখি"  সংগঠনের পক্ষ থেকে যারা এখনো ত্রাণ সামগ্রী পায়নি এমন ৭৬টি পরিবারের মাঝে এই খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি। যদি কেউ বলে আমার বাড়ি খাবার নেই তাহলে আমার সংগঠনের যে কাউকে জানালে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করবো ইনশাআল্লাহ।
তিনি আরো বলেন, শার্শার উপজেলা তথা সমগ্র দেশের জনসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানাই, দয়া করে আপনারা ঘরে থাকুন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। আপনাদের খাবার সংকটে আমাদের পাশাপাশি জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ও শার্শার মাননীয় সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন কাজ করে যাচ্ছে। আপনি ঘরে থাকলে নিজে নিরাপদে থাকবেন এবং দেশকে নিরাপদে রাখতে পারবেন তাই এই মুহূর্তে দয়া করে ঘরের বাহির হবেন না।”
এই বিতরণকালে শার্শা ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান, যুবলীগ নেতা আলী কদর, এবং উক্ত সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি হাসানুজ্জামান, সাধারন সম্পাদক মফিজুর রহমান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক জাহিরুল মিলন, সদদ্য রফিকুল ইসলামসহ অন্যান্য সদদ্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages