সুনামগঞ্জের গ্রাম্য হাটবাজারে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি, প্রশাসনের নজরধারী দেওয়া উচিত - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Thursday, 4 June 2020

সুনামগঞ্জের গ্রাম্য হাটবাজারে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি, প্রশাসনের নজরধারী দেওয়া উচিত

একুশে মিডিয়া, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
লকডাউন তুলে নেয়ার পর গ্রামের মানুষের মধ্যে করোনা আতংক অনেকটা কমে গেছে। দিনে দিনে করোনার ভয়াবহতা বাড়লেও গত সোমবার থেকে বাজারে মানুষে মানুষে গায়ে গা লাগানো ভিড়। স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা হচ্ছে না মোটেই। ক্রেতা ও বিক্রেতা কেউই সচেতন নন। মানুষের স্বাভাবিক চলাফেরায়ও হ্যান্ড ওয়াস, মাস্ক ব্যবহার করা হচ্ছে না। হাটবাজার ও পয়েন্টের চায়ের দোকানগুলোতে কাস্টমারদের মনোরঞ্জনের জন্য রাখা হয়েছে টিভি। চা পানের পাশাপাশি ব্রেঞ্চে বসে আড্ডা দিতে দেখা গেছে লোকজনদের।
কাস্টমারেরা বিড়ি-সিগারেট, পান ও অন্যান্য খাবার খাচ্ছেন নোংরা পরিবেশে বসে। এই অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফাঁকে ফাঁকে থেকে চলাচল করা যাচ্ছে না। স্বাস্থ্যবিধি না মানায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে ঝুঁকিও বাড়ছে।
সদর উপজেলার মঙ্গলকাটা বাজার, বালাকান্দা বাজার, কাইয়ারগাঁও বাজার, হালুয়ারঘাট বাজার, চৌমুহনীবাজার, আমপারা বাজার, রংপুর বাজার, হাসাউড়া বাজার, নৈগাংবাজার, আদারবাজার, বেতগঞ্জ বাজার, শান্তিপুর বাজার, টুকের বাজার, শহরতলীর গ্রাম সদরগড়, আনন্দ বাজার, ইব্রাহীমপুর ও পূর্বইব্রাহীমপুরে নামেমাত্রও স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না।
সুনামগঞ্জ উত্তর সুরমা উন্নয়ন পরিষদের আহ্বায়ক মো. আব্দুর রব বলেন, মঙ্গলকাটা, চৌমুহনী ইত্যাদি এলাকার মানুষের মধ্যে করোনার ভয়াবতা থেকে রক্ষা পেতে তেমন সচেতনতা নেই। মানুষ আগের মতই চলাফেরা করছে। কোথাও স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার নেই, মাস্ক নেই। শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে না।
সদর উপজেলার কুরবাননগর ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবুল বরকত বলেন, করোনা রোগের আগে যেমন ছিল এখন ঠিক তেমনই মানুষের চলাফেরা। মানুষকে বুঝিয়েও মাস্ক পরানো যাচ্ছে না। এজন্য প্রশাসনের আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া উচিত।




একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages