কাশিনগর ইউনিয়নে বাড়ীর রাস্তার বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মা-মেয়ে আহত! - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Tuesday, 3 March 2020

কাশিনগর ইউনিয়নে বাড়ীর রাস্তার বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মা-মেয়ে আহত!



এম এ হাসান, কুমিল্লা:
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের জয়মঙ্গলপুর( সাতঘরিয়া) গ্রামে বসত বাড়ীর রাস্তার বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মা-মেয়ে সহ আহত ৬ জন।
এঘটনায় প্রতিবেশীদের মাধ্যমে রক্তাক্ত জখমী আহত হওয়া রাশেদা বেগম (৫৫) ও তার কন্যা উম্মে হাবিবা( ১৯) কে স্থানীয় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
এঘটনায় মারাত্মক ভাবে আহত রাশেদ বেগম এর পক্ষে তার ভাই একই ইউনিয়নের জুগিরকান্দি গ্রামের মৃত আনোয়ার আলীর ছেলে আবুল কালাম সিকদার (৩৯) বাদী হয়ে হামলাকারী প্রতিপক্ষের ৯ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনের বিরুদ্ধে চৌদ্দগ্রাম থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযুক্ত রা হলেন,এছাক মিয়া (৩০) পিতা তাজুল ইসলাম, তাজুল ইসলাম (৬০) পিতা আবদার আলী, সোহেল (২৫) পিতা তাজুল ইসলাম, রোছিয়া খাতুন (৪০) পিতা ভোল মিয়া, তামান্না আক্তার( ১৯) পিতা শহিদ মিয়া, ভোলা মিয়া (৭০) পিতা আবদার আলী, মুক্তা (২০) স্বামী এছাক মিয়া, শারমিন আক্তার (২২) স্বামী সোহেল মিয়া আরো অজ্ঞাত ২/৩ জন।
থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায় আহত রাশেদা বেগম এর পরিবারের সাথে প্রতিবেশী এছাক মিয়া গং দের মধ্যে বাড়ীর রাস্তার একটি বিরোধ দীর্ঘ দিন ধরে চলিয়া আসিতেছে।
সেই রাস্তার বিরোধের জের ধরে ২৭ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার প্রায় ১ ঘটিকার সময় পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে বিবাদী গং দেশীয় অস্ত্র দা ছেনি লোহার রড দিয়ে আহত রাশেদা বেগমের উপর অতর্কিত হামলা করা শুরু করে,এসময় প্রতিপক্ষের দেওয়া দায়ের কোপে রাশেদা বেগম এর হাতের আঙুল সহ হাতের কবজিতে রক্তাক্ত জখম হয়ে কেটে যায়,তাৎক্ষণিক ঘরে থাকা রাশেদা বেগমের মেয়ে উম্মে হাবিবা (১৯) দৌড়ে এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষ হামলাকারী রা তাকে চুলে ধরে এলোপাতাড়ি কিল ঘুসি দিয়ে মাটিতে পেলে দেয় এসময় উম্মে হাবিবার চিৎকার শুনে তার বাড়ীতে থাকা একই পরিবারের হালিমা আক্তার, আব্দুল খালেক,মরিয়ম বেগম, সেরাজ মিয়া এগিয়ে আসলেও তারা নিরস্ত্র ছিলো,পাশাপাশি প্রতিপক্ষের হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র  লোহার রড ও দা ছেনির হামলায় সকলের ই শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত নিলা ফুলা তেথলানো অবস্থায় বাড়ীর উঠানে পড়ে চিৎকার শুরু করলে বাড়ীর পাশে রাস্তা ও দোকান থেকে স্থানীয় এলাকাবাসী দূরে আসলে কৌশলে প্রতিপক্ষের হামলাকারীরা পালিয়ে নিজ ঘরে গিয়ে বসে থাকেন।
এরই মাঝে রক্তাক্ত জখম হওয়া মা রাশেদা বেগম ও কন্যা উম্মে হাবিবা কে দ্রুত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়,এবং এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তারা দুইজন কে  হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
পাশাপাশি বসবাসরত প্রতিবেশীদের মধ্যে এমন হামলার ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়ে যায়। থানায় অভিযোগ করা আহত রাশেদা বেগম এর ভাই আবুল কালাম সিকদার বলেন পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে এই হামলা করা হয়েছে কেননা তখন আমার বোন ভাগনি ছাড়া কেউ ছিলোনা, দিনে দুপুরে এমন অতর্কিত এলোপাতাড়ি হামলার বিষয় টি পুলিশ প্রশাসনের সুবিচার কামনা করছি।সরজমিনে গিয়ে সত্যতা পাওয়া যায় যে এই প্রতিবেশীদের মধ্যে একটি রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলিয়া আসিতেছে।
এরমাজে পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বৃহস্পতিবার অতর্কিত হামলা চালায় প্রতিপক্ষ হামলাকারী রা।
স্থানীয় চৌদ্দগ্রাম থানায় অভিযোগ এর বিষয়টি জানতে আলাপকালে অভিযোগ তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার তথ্য টি নিশ্চিত করেন এসময় তিনি বলেন আমাদের নিকট একটি অভিযোগ করা হয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী তে জানানো হবে।



একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages