চট্টগ্রামে ব্যারাকের একাংশ ‘লকডাউন’ হোম কোয়ারেন্টাইনে ২০০ শত পুলিশ - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Monday, 13 April 2020

চট্টগ্রামে ব্যারাকের একাংশ ‘লকডাউন’ হোম কোয়ারেন্টাইনে ২০০ শত পুলিশ


একুশে মিডিয়া, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
চট্টগ্রামে ট্রাফিক পুলিশের এক কনস্টেবল করোনা আক্রান্ত হওয়ায় দামপাড়া ব্যারাকের ২০০ পুলিশ সদস্য ও বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালের তিন চিকিৎসকসহ ২৫ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। সেইসঙ্গে চট্টগ্রাম দামপাড়া পুলিশ লাইনের সিএমপির ট্রাফিক উত্তর বিভাগের ব্যারেক লকডাউন করা হয়েছে।<:একুশে মিডিয়া:>
এ ছাড়া চট্টগ্রামে নতুন ৫ রোগী শনাক্তের পর তিন উপজেলায় ৪টি বাড়ি লকডাউন করেছে জেলা প্রশাসন।<:একুশে মিডিয়া:>
রোববার (১২ এপ্রিল) রাতেই নগরের ওই ব্যারেক লকডাউন করা হয়। একই সঙ্গে বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালের তিন চিকিৎসক, তিন জন নার্স, সাতজন মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট, ১২ জন রুমমেট ও ব্যারাকের ২০০ জন পুলিশ সদস্যকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়।<:একুশে মিডিয়া:>
চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক হাসান শাহরিয়ার জানান, রোববার চট্টগ্রামের বিআইটিআইডিতে (বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস) নমুনা পরীক্ষায় করোনা আক্রান্ত ছয়জনই পুরুষ। তাদের একজন নগরের পুলিশ লাইন্স এলাকার ৫৫ বছর বয়সী কনস্টেবল। তিনি ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত।<:একুশে মিডিয়া:>
তিনি সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে পড়ার পর থেকে দামপাড়া পুলিশলাইন্স হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন। পুলিশের যেসব সদস্য আক্রান্ত সদস্যের সংস্পর্শে ছিলেন তাদের মধ্যে মোট ২২৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।<:একুশে মিডিয়া:>
ctg-police-1
এদিকে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, রোববার করোনা শনাক্ত প্রতিবন্ধী শিশুটি মারা গেছে। রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।<:একুশে মিডিয়া:>
মৃত ৬ বছর বয়সি শিশুটি পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। রাত আড়াইটায় ওই শিশুকে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়। পরে ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়। এখন নিয়ম অনুযায়ী তার দাফনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।<:একুশে মিডিয়া:>
সীতাকুণ্ড উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মিল্টন রায় জানান, উপজেলার ফৌজদারহাট এলাকার বাবুল মেম্বারের পুরাতন বাড়ি এলাকায় ৫৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।<:একুশে মিডিয়া:>
সাতকানিয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নুরে আলম বলেন, ‘সাতকানিয়া পৌর সদরের ১ নম্বর ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের দুই যুবক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের একজন শিক্ষার্থী, অপরজন ব্যবসায়ী।<:একুশে মিডিয়া:>
তাদের বাড়ি লকডাউনের কাজ চলছে। এ ছাড়া বৃহস্পতিবার করোনা রোগী মৃত্যুর ঘটনায় উপজেলার পশ্চিম ঢেমশা এলাকার আলী নগরের ইছামতি গ্রামের ৩৯০ পরিবারের ৩ হাজার ৭১২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।<:একুশে মিডিয়া:>
এর আগে, ৯জন করোনা রোগী শনাক্ত হলে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার একটি গ্রাম, জেলার ২৪টি বাড়ি ও একটি ব্যাংক লকডাউন করা হয়।<:একুশে মিডিয়া:>
এ ছাড়া বিভিন্ন এলাকায় হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন প্রায় সাড়ে ৪ হাজার মানুষ।<:একুশে মিডিয়া:>




একুশে মিডিয়া/এমএসএ<:একুশে মিডিয়া:>

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages