বাঁশখালীতে ভুয়া স্টেডিয়াম নির্মাণের নামে বিশাল পাহাড় কেটে মাটি বিক্রয় - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Saturday, 26 June 2021

বাঁশখালীতে ভুয়া স্টেডিয়াম নির্মাণের নামে বিশাল পাহাড় কেটে মাটি বিক্রয়

একুশে মিডিয়া, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:

ছবি: একুশে মিডিয়া

ভুয়া স্টেডিয়াম নির্মাণের নামে চট্টগ্রামের বাঁশখালীর বৈলছড়ি ইউনিয়নের জঙ্গল চেচুরিয়া গ্রামের খোদাল্যা পাড়া সংলগ্ন একটি বিশাল খাস পাহাড় কেটে ফেলছে পাহাড় খেকোরা।পড়ে অবশ্য গ্রামবাসীর অভিযোগ পেয়ে স্থানীয় প্রশাসন পাহাড় কাটা বন্ধ করে দিয়েছেন। পাহাড় কাটায় জড়িত ব্যক্তিদেরকে আজ রবিবার (২৭ জুন) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ডাকানো হয়েছে। সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, ৩০ ফুট উঁচু বিশাল পাহাড়। ওই সরকারি খাস পাহাড়ের শিরোভাগেই প্রায় ৪৪০ শতক জায়গা জুড়ে বিশাল সমতল অংশ নিয়ে মাঠ। পাহাড়ে বসতি স্থাপন করা গ্রামের যুবকরা ওটাকে খেলার মাঠ হিসেবেই ব্যবহার করেন। ওই বিশাল পাহাড়েই নজর পড়ে পাহাড় খেকোদের।

যুবকদের খেলা প্রীতিকে প্রতারণা করে গ্রামের পাহাড় খেকোরা বলতে থাকেন এটা সরকারিভাবে স্টেডিয়াম নির্মাণের আদেশ হয়েছে। সরকারি প্রকল্পও বরাদ্দ হয়েছে। পাহাড়ের সুউচ্চ অংশ কেটে করা হবে বিশাল স্টেডিয়াম। এসব প্রচার করে মঞ্জুরুল আলম নামের স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা পাহাড় কাটা শুরু করেছেন।

শনিবার (২৬ জুন)সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ১০টি ড্যাম্পার ট্রাকে অনন্ততঃ ২২০ গাড়ি মাটি বিক্রয় করে দিয়েছেন। বিশাল স্কেভেটর দিয়ে কাটা হয়েছে মাঠের বিশাল একটি অংশের মাটি। প্রতি গাড়ি মাটি বিক্রয়ে আদায় করেছেন ১৮০০ টাকা। এসব মাটি নিয়ে যাবার সময় গ্রামের মেটোপথ ভেংগে চূড়মার হয়ে গেছে।

পাহাড় কাটাতে জড়িত মঞ্জুরুল আলম মুঠোফোনে বলেন, ‘ সরকারি ভাবে স্টেডিয়াম করার জন্য আমি একটি সরকারি প্রকল্প পেয়েছি তাই পাহাড় থেকে মাটিগুলো সরানো হচ্ছে। এখানে আমি মাটি বিক্রয় করছি না। এলাকার স্বার্থে স্টেডিয়াম নির্মাণ করছি।’ এছাড়া কোন দফতরের প্রকল্প, কত টাকা বরাদ্দ, কোন কাগজপত্র আছে কিনা জিজ্ঞাসা করলে তিনি কোন সদুত্তর দেননি। বরঞ্চ বলেন, পাহাড় কেটে অন্যায় করিনি, ইউএনও সাহেব বলেছে তাই আপাতত বন্ধ রেখেছি। ইউএনও সাহেবের সাথে বৈঠকের পর পাহাড় কাটবো কিনা কাটবো না তা সিন্ধান্ত নেব।

বৈলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. কফিল উদ্দিন বলেন, ‘কোন ধরণের স্টেডিয়াম নির্মাণের সরকারি বরাদ্দ হয়নি। মঞ্জুরুল আলম নামের ওই ব্যক্তি মাটি বিক্রয়ের জন্য পাহাড় কাটছে। জনগণের প্রতিরোধ সামলাতে ভুয়া স্টেডিয়াম নির্মাণের কথা বলছেন।

বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, স্থানীয় গ্রামবাসীর অভিযোগ পেয়েই আমি বিষয়টি সহকারী কমিশনার (ভূমি)’র ওপর দায়িত্ব অর্পণ করছি।

সহকারি কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘ পাহাড় কাটা বন্ধ করে দিয়েছি। পাহাড় কাটায় জড়িতরা যেহেতু ঘটনাস্থলে নেই তাই তাদের রবিবার (২৭ জুন) ইউএনও স্যারের কার্যালয়ে ডাকানো হয়েছে। এরপরই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

 

 

 

শনিবার ২৬ জুন ২০২১ ইং# প্রধান সম্পাদক শাহ্ মুহাম্মদ শফিউল্লাহ এবং সম্পাদক প্রকাশক মোহাম্মদ ছৈয়দুল আলম কর্তৃক প্রকাশিত একুশে মিডিয়ার সংবাদ

 

একুশে মিডিয়া.কম' প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না

No comments:

Post a Comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages