মহেশখালীতে দুই গ্রুফের মুখামুখি সংর্ঘষে গুলিবিদ্ধ ৫ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক ২ - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Monday, 13 January 2020

মহেশখালীতে দুই গ্রুফের মুখামুখি সংর্ঘষে গুলিবিদ্ধ ৫ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক ২


শফিউল আলম, মহেশখালী (কক্সবাজার) প্রতিনিধি >>>
মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের নয়া পাড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত দীর্ঘদিনের  বিরোধকে কেন্দ্র করে বিবদামান দুই গ্রুফের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে।
আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন স্থানিয় নয়াপাড়া গ্রামের সাদ্দাম হোসেন (৩৮),নুর আয়েশা (২৭),নুরুল আবচার (৩২),ছেনুয়ারা বেগম(৩৫),আলী হোসেন (৫৪)। স্থানীয় এলাকাবাসীর সুত্রে জানা গেছে, আব্দু সবুর মাঝির নেতৃত্বে লেদু মিয়া,গোলাপ শাহ,সেলিম,আরিফুল্লাহ, সোলেমান ডাকাতসহ ১০/১২জনের একদল অবৈধ অস্ত্রধারী এ হামলার ঘটনা ঘটায়।
হামলায় আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে আহতদের অবস্থা অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চার জন আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেছেন।
গুলিবিদ্ধ আলী হোসেন দাবি করেন, তাঁর একটি জমির কিছু অংশ কক্সবাজার শহরের হোটেল সাগরগাও’র মালিক শাহেদুল ইসলামের কাছে বিক্রি করার জন্য বায়না নামা হয়। সোমবার সকালে আব্দু সবুর মাঝি তার দলবল নিয়ে উক্ত জমি জবর দখল করতে যায়। কিন্তু জমির মালিক আলী হোসেন এর ছেলেরা বাধা দেয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে এলোপাড়াড়ি গুলি ছুড়তে ছুড়তে আলী হোসেনের বাড়ীতে ঢুকে যায় হামলাকারীরা। বাড়িতে প্রবেশ করে তারা হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। তবে স্থানিয় লোকজন বলছেন, কথাকাটির জের ধরে দুই পক্ষ অস্ত্র নিয়ে গুলাগুলি শুরু করলে ররক্তক্ষয়ী সংঘর্ষেরর রুপ নেয় ঘটনাটি।
মহেশখালী থানা পুলিশ ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।
কুতুমজোম ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন খোকন বলেন,স্থানিয় কিছু প্রভাবশালীদের নিকট অবৈধ অস্ত্র রয়েছে। তাই তারা দাঙ্গা-হাঙ্গামার মত ঘটনা ঘটনায়।
ঘটনাটির বিষয়ে তিনি সত্যতা স্বীকার করেন। এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার পুলিশ পরিদর্শক বাবুল আজাদ জানান, ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ পাটিয়ে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসা হয়। জিজ্ঞাসা বাদের জন্য সবুর মাঝি এবং দুদু মেম্বার পুলিশের হাতে।






একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages