রংপুরের পীরগাছায় ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা; ধর্ষক গ্রেফতার - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Thursday, 28 May 2020

রংপুরের পীরগাছায় ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা; ধর্ষক গ্রেফতার

রেখা মনি, রংপুর:

পীরগাছা উপজেলার কৈকুড়ি ইউনিয়ন এর মীরাপাড়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক রাশেদুজ্জামান রয়েল সরকার কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ধর্ষিতার পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে ধর্ষিতার দাদি একই এলাকার স্কুল শিক্ষক    আশরাফুজ্জামান ভুট্টুর বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করতো, সেই সুবাদে ওই ছাত্রী তার দাদিরসাথে ওই বাড়িতে যাতায়াতের এক পর্যায়ে নিয়মিত রয়েলের বড় ভাইয়ের (শিশু বাচ্চা) মেয়ে কে দেখাশুনার দায়িত্ব পালন করত। এই সুযোগে বখাটে রয়েল জোরপূর্বক মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। এর পর  তাকে বিয়ের প্রলোভনে নিয়মিত ধর্ষণ করে আসছিল।

কিছুদিন পর ধর্ষিতা মেয়েটির শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে, বিষয়টি জানাজানি হলে ওই ছাত্রী জানায়, রয়েল তাকে ভয় দেখিয়ে কয়েকবার ধর্ষণ করেছিলো। বিষয়টি কাউকে জানালে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছিলো রয়েল। সেজন্য ভয়ে সে বিষয়টি কাউকে জানায়নি।

পরে মেয়েটির পরিবারের লোকজন চিকিৎসকের মাধ্যমে আল্ট্রাসনোগ্রাম করে জানতে পারে তাদের মেয়ে ২৩ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। বিষয়টি রয়েলের পরিবারকে জানালে তারা প্রভাবশালী হওয়ায় দাপট দেখিয়ে ওই ছাত্রীর পরিবারকে হুমকি দিয়ে থামিয়ে রাখে। মেয়ের পরিবার কোনভাবেই সাহস পাচ্ছিল না ধর্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার। ঠিক সেই মুহুর্তে পীরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ সোর্সের মাধ্যমে উক্ত বিষয়টি জানতে পেরে রয়েলকে থানায় ধরে নিয়ে আসে। এ কারণেই ওই মেয়ের বাবা আমজাদ হোসেন সাহস পায় ধর্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার। তিনি বাদী হয়ে রয়েল এর বিরুদ্ধে মামলা করেন।

পীরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, একই গ্রামের কৈকুড়ি ইউনিয়নের মিরাপাড়ার বাসিন্দা, আশরাফুজ্জামান ভুট্টো’র ছেলে ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী রাশেদুজ্জামান @ রয়েল সরকার (১৮) ওই দিনমজুরের মেয়েকে দীর্ঘ দিন ধরে প্রথমে ভয়ভীতি দেখিয়ে পরে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ করে আসছিলো। এতে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লেও দরিদ্র ওই দিনমজুর প্রভাবশালি আশরাফুজ্জামান ভুট্টোর বিরুদ্ধে ভয়ে ব্যবস্থা নিতে পারেন নি এতোদিন। মেয়ের বাবা ঢাকায় রিক্সা চালায়, মা ও দাদি পরের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে।




একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages