বাঁশখালীতে বিট পুলিশিং সভায় সহকারী পুলিশ সুপার মফিজ - Ekushey Media bangla newspaper

Breaking News

Home Top Ad

এইখানেই আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ: 01915-392400

নিউজের উপরে বিজ্ঞাপন

Saturday, 17 October 2020

বাঁশখালীতে বিট পুলিশিং সভায় সহকারী পুলিশ সুপার মফিজ

একুশে মিডিয়া, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:


সন্ত্রাসী কিং বা মাদক ব্যবসায়িদের কোন ধর্ম নেই, কোন দল নেই বলে মন্তব্য করেছেন সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) মো. মফিজ উদ্দীন। বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে জেলা পুলিশের নির্দেশনায় বিট পুলিশিং কার্যক্রমের উপর এক সচেতনতা মূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ১১টায় সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দীন চৌধুরী খোকার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্কুল শিক্ষার্থী ও এলাকার নারী-পুরুষ অংশ গ্রহণ করেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাঁশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার, রামদাস হাট পুলিশ তদš Íকেন্দ্রের পরিদর্শক মোস্তফা কামাল।
অন্যান্যদেও মধ্যে বক্তব্য রাখেন এস.আই রকিবুল ইসলাম, সাধনপুর পল্লী উন্নয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোকন চক্রবর্তী, সাধানপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ছাদুর রশিদ, ইউপি সদস্য করুনাময় ভট্টাচার্য, ইউপি সদস্য মো. ফেরদৌস, ইউপি সদস্য শওকত আলী, ইউপি সদস্য আবদুল হক, ইউপি সদস্য অপর্ণা দে, ইউপি সদস্য খুরশিদা জাহান, ছাত্র নেতা কপিল উদ্দিন, মো. হালিম, রেজাউল হক, স্কুল শিক্ষিকা জয়নাব বেগম, নারী নেত্রী নুর নাহার বেগম, মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থী নাদিশা জান্নাত, শতরূপা দে, অপর্ণা সিকদার প্রমূখ।
বাঁশখালী সাধনপুর পল্লী উন্নয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী নাদিশা জান্নাত সাধনপুর বিট পুলিশিং কার্যক্রমে নারীদেও নির্যাতন বন্ধের দাবী জানিয়ে বলেন, সমাজে নারীদেরকে বিভিন্নভাবে অবহেলা রশিকা রহতে হয়। বখাটেরা রাস্তা-ঘাটে শিক্ষার্থীদেরকে বিভিন্নভাবে কটুক্তি করে থাকেন। মাদক বলুন, নারী নির্যাতন বলুন কারা এর সাথে জড়িত। অপরাধ একটির সাথে অপরটির সম্পৃক্ততা রয়েছে। নারীদেও সচেতনতা বৃদ্ধিও লক্ষে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রচারণা চালানো জন্য তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে অনুরোধ জানান।     
সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দীন চৌধুরী খোকা বলেন, সাধনপুর এলাকায় মাদকের ব্যাপাওে অনেক বার অভিযান পরিচালনা কওে মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। মাদক ব্যবসায় জড়িতরায তই শক্তিশালী হোক তাদেরকে এলাকা ছাড়তে হবে। মাদক এই এলাকা থেকে নির্মুল করতে ইহবে।
বাঁশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে উপজেলার ১৪ ইউনিয়ন ও পৌরসভায় বিট পুলিশিং এর কার্যক্রমে সচেতনতা মূলক আলোচনা হয়েছে। এতে সব পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
অতিথির বক্তব্যে সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) মো. মফিজ উদ্দীন বলেন, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে শিক্ষক, অভিভাবক, সমাজের বিত্তশালীজন প্রতিনিধিসহ সকল পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। মাদক সেবী এবং ধর্ষণকারী সকলে ইসমাজের খারাপ লোক। তাদেরকে পুলিশ বিভিন্ন কৌশলে গ্রেপ্তার করে থাকেন। পওে জামিনে এসে আবারতারা অপরাধ জগতে পা বাড়ায়। নারীদেও নিয়ে মামলা মোকদ্দমায় জড়িয়ে এক শ্রেণির লোক সুবিধা গ্রহণ করছেন। সেইদিকে আমাদেও নজর দিতে হবে। 

 

 

 

একুশে মিডিয়া/এমএসএ

No comments:

Post a comment

নিউজের নীচে। বিজ্ঞাপনের জন্য খালী আছে

Pages